wapkiz.com
সকলেই জানে ধূমপান স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। তবুও ধূমপান চালিয়ে যান অনেকে।
এই অভ্যাস ত্যাগ করতে গিয়ে নানা প্রচেষ্টা চালানোর পরেও ব্যর্থ হন কেউ-কেউ। তবে এ বিষয়ে হতাশ হবে না। এই কু-অভ্যাস ত্যাগ করতে কিছু অব্যর্থ কৌশল রয়েছে, যা নিচে তুলে ধরা হলো-

নিজেকে ব্যস্ত রাখা : ধূমপানের টান উঠলেই অন্যকিছুতে নিজেকে ব্যস্ত করে ফেলুন। গান শুনুন, কম্পিউটারে গেম খেলুন অথবা বাগানে নতুন কোনও গাছ লাগান। অতিথি কিংবা সবার বেলাতেই বাড়িতে ধূমপান নিষিদ্ধ করুন।

তালিকা তৈরি করাঃ ধূমপানের পক্ষে ও বিপক্ষের যুক্তিগুলোর তালিকা তৈরি করুন। তালিকাটি পরিবার ও বন্ধুদের দেখান। অন্যদের যুক্তিগুলোও
তালিকাতে যোগ করুন। নিশ্চিতভাবেই ধূমপানের বিপক্ষের যুক্তির তালিকা লম্বা হয়ে যাবে।
ধূমপানের ক্ষতিকর দিকগুলোর লম্বা একটি তালিকা চোখের সামনেই রাখার ব্যবস্থা করুন।

সময়টা জেনে রাখা : কোন সময়ে আপনি ধূমপান করেন এবং তখন আপনি কী করেন সেটি নোট করুন। পরবর্তী সময়ে ওই কাজ করার সময় আর ধূমপান করবেন না। এক মাস পরের একটি দিন ঠিক করে ফেলুন এবং নিজেকে কথা দিন ওই দিনের পর আপনি আর কখনও ধূমপান করবেন না।

বিকল্প নির্ভরতা : সিগারেটের বদলে বরং বাদাম, লজেন্স, চুইংগাম এগুলো খেতে পারেন।

সঞ্চয়-উপহার : সিগারেট না কেনার কারণে প্রতিদিন যে টাকা জমবে তা একটি কাচের পাত্রে রাখুন যাতে টাকাগুলো বাইরে থেকে দেখা যায়। এক মাস পর ওই টাকায় প্রিয়জনকে সুন্দর কিছু উপহার দেয়ার পরিকল্পনা করুন।

wapkiz.com